• শিরোনাম

    লেমনগ্রাসের স্বাস্থ্য

    লেমনগ্রাসের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত উপকারিতা

    নিউজজি ডেস্ক | মঙ্গলবার, ১৭ আগস্ট ২০২১

    লেমনগ্রাসের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত উপকারিতা

    ঘাসজাতীয় একটি সুগন্ধী উদ্ভিদ ‘লেমনগ্রাস’। দক্ষিণ এশীয় রান্নার উপকরণ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে বহুকাল আগ থেকেই। বিভিন্ন খাবারের সঙ্গে রান্না করে কিংবা স্যুপ তৈরি করে খেতে পারেন লেমনগ্রাস। তাছাড়া লেমনগ্রাসের চা পান করতে পারেন।লেবুর গন্ধযুক্ত এই পাতা শুধু খাবারের ঘ্রাণ বাড়ায় তা নয়, স্বাদও অনেকখানি বাড়িয়ে দেয়।অনেকেই হয়তো ছাদে বা বেলকনির টবে লাগিয়ে থাকেন লেমনগ্রাসের গাছ। তবে ঘাসজাতীয় লেমনগ্রাসের আছে নানা উপকারিতা, যা জানলে আপনি অবাক হয়ে যাবেন।

    লেমনগ্রাসের আছে অনেক ওষুধি গুণ। ঠান্ডা-কাশি থেকে শুরু করে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপসহ অনেক রোগের ঘরোয়া সমাধান এই লেমনগ্রাস।

    হজমে সহায়তা করে:

    লেমনগ্রাসের প্রাথমিক উপাদান হল ‘সিট্রাল’ যা হজমে সাহায্য করে। তাই খাবারের পরে লেমনগ্রাস সমৃদ্ধ পানীয় পান উপকারী। এছাড়াও, গবেষণা থেকে জানা যায় যে, এটা পেশিকে আরাম দিতে সাহায্য করে এমনকি ‘পিএমএস’য়ের নানান লক্ষণ যেমন-মাথাব্যথা, পেশি ও অস্থির সংযোগস্থলের ব্যথা ইত্যাদি উপশমে সহায়তা করে। তাছাড়া অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও প্রদাহনাশক উপাদান থাকায় তা নিয়মিত খাওয়া সার্বিকভাবেই শরীরের জন্য উপকারী।

    অ্যানিমিয়া দূর করে:

    রক্তে লোহিত কণিকা বা হিমোগ্লোবিন কমে যাওয়ার কারণে দেখা দেয় অ্যানিমিয়া। সুস্থ লোহিত রক্ত কণিকার অভাবে রক্তে অক্সিজেনের সরবারহ কমে যায়। ফলে শরীর দুর্বল ও ক্লান্ত হয়ে পড়ে। কয়েকটি গবেষণায় দেখা গেছে লোহিত রক্ত কণিকা বাড়াতে লেমন গ্রাস ইতিবাচক ভূমিকা রাখে।

    এতে ফলিক অ্যাসিড, তামা, থায়ামিন, লৌহ, দস্তা ইত্যাদি উপস্থিত থাকায় তা লোহত কণিকা বাড়াতে সহায়তা করে। এছাড়াও এতে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ফার্মালজিকেল উপাদান।

    ওজন কমায়:

    ‘লেমন গ্রাস টি’ সারা পৃথিবীতে ‘ডেটক্স টি’ হিসেবে পরিচিত। এটা বিপাক বাড়িয়ে ওজন কমাতে সহায়তা করে। লেমন গ্রাস প্রাকৃতিকভাবেই মূত্রবর্ধক হওয়ায় তা শরীর থেকে বিষাক্ত উপাদান দূর করে। এবং ওজন কমাতে সহায়তা করে।

    তবে ওজন কমাতে নিয়মিত এটা না খাওয়ার পরামর্শ। কেননা প্রতিনিয়ত লেমন গ্রাস খাওয়া ওজন কমানোর পাশাপাশি নানান পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কারণ হতে পারে।

    রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণ করে:

    রক্ত চাপ কমানোর প্রাকৃতিক ও কার্যকর উপায় হল লেমন গ্রাস। পুষ্টিবিদরা একে ‘সুপার ফুড’ বলে ব্যাখ্যা করেন। কারণ এতে আছে পটাসিয়াম যা, রক্ত সঞ্চালনকে উদ্দীপিত করে ও রক্তচাপ হ্রাস করে।এটা যকৃত সুস্থ রাখে এবং অন্ত্র থেকে নিঃসৃত কোলেস্টেরল শোষণ করে শরীর সার্বিকভাবে সুস্থ রাখে।

    উজ্জ্বল ত্বক ও চুলের জন্য:

    ‘লেমন গ্রাস’ ব্যাক্টেরিয়া ও ফাঙ্গাসরোধী উপাদান সমৃদ্ধ এবং এটা ত্বক পরিষ্কার করতেও খুব ভালো কাজ করে। তাই টোনার শেষ হয়ে গেলে এর পরিবর্তে লেমন গ্রাসও ব্যবহার করতে পারেন।এটা ত্বকের বাড়তি তেল শুষে নিয়ে ত্বককে পরিষ্কার করে। ব্রণ, একনি ও একজিমার মতো ত্বকের সমস্যা থেকে রক্ষা পেতে সহায়তা করে।

    কিডনির সচল এবং স্বাস্থ্যকর রাখে:

    জার্নাল অব রিনাল নিইট্রিশনে প্রকাশিত এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, এটি শরীরের বর্জ্য ফিল্টার করতে সাহায্য করে। রক্ত প্রবাহ স্বাভাবিক রাখে। আর শরীরে রক্তসঞ্চালন ঠিকভাবে হলে শরীরের বিভিন্ন রোগের সম্ভাবনা কমে যায়। তাই কিডনিও থাকে সচল এবং স্বাস্থ্যকর।এমনকি লেমনগ্রাস গ্রহণে কিডনির পাথর, ক্যান্সার, স্ট্রোকও প্রতিরোধ হবে। এ ছাড়াও কিডনির পাথর সারাতেও বেশ কার্যকরী লেমনগ্রাসের রস।

    তবে লেমনগ্রাস খাওয়ার আগে অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে। কারণ অনেকের জন্য লেমনগ্রাস খাওয়া ক্ষতিকর হতে পারে। যাদের হার্টের সমস্যা আছে তাদের কম খাওয়াই ভালো।

    এ ছাড়াও বেশি পরিমাণে লেমনগ্রাস খাওয়া ডায়রিয়ার কারণ হতে পারে। কারণ এতে প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম। তাই অতিরিক্ত লেমনগ্রাস কখনোই খাবেন না।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত