• শিরোনাম

    চলে গেলেন

    চলে গেলেন আবাহনীর দুঃসময়ের সংগঠক ফয়েজুর রহমান

    নিজস্ব প্রতিবেদক | শনিবার, ১৪ আগস্ট ২০২১

    চলে গেলেন আবাহনীর দুঃসময়ের সংগঠক ফয়েজুর রহমান

    বাবা আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার অন্যতম আসামি মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক এবং সাবেক স্বাস্থ্য সচিব আহমেদ ফজলুর রহমান। বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত তিনি। ছেলে আহমেদ ফয়েজুর রহমান ছিলেন আবাহনীর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য।

    আশি দশকের শুরুতে আবাহনীর দুঃসময়ে যখন পৃষ্ঠপোষকের বড়ই অভাব, তখন আবাহনীর ক্রিকেট কমিটির সেক্রেটারি রাশিদুল হাসান রজত এবং ক্রিকেটার জি এস হাসান তামিমের অনুরোধে ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছিলেন।

    ছিলেন এই দায়িত্বে প্রায় এক দশক। আবাহনীর এই পরিচালক সেরা ক্রিকেট দল গঠনে দুহাত উজাড় করে টাকা খরচ করেছেন। ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটে শ্রীলংকা ক্রিকেটারদের পদচারণার নেপথ্যে এই ক্রীড়া সংগঠকের আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতা। তিনি যখন আবাহনী ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান, সেই আমলেই ঢাকা ক্রিকেট লিগে প্রথম ক্লাব হিসেবে আবাহনী হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটে পারফরমেন্স বোনাস প্রবর্তন করেছেন এই ক্রিকেট নিবেদিতপ্রাণ। আবাহনী ক্রীড়া চক্র লিমিটেডে পরিণত হওয়া পর্যন্ত ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান পদটা ছিল তার জন্য নির্ধারিত।

    আবাহনী ক্রিকেট দলের পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন জীবনের শেষদিন পর্যন্ত। তবে শেখ কামাল প্রতিষ্ঠিত আবাহনী ক্লাবের পৃষ্ঠপোষকতার সুবাদে যারা রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত হয়েছেন, বিভিন্ন ক্রীড়া ফেডারেশনে হর্তা-কর্তা হয়েছেন, তাদের দলে ছিলেন না ফয়েজুর রহমান।

    আবাহনী নিবেদিতপ্রাণ সংগঠক আহমেদ ফয়েজুর রহমান দীর্ঘ রোগ ভোগের পর শনিবার সকাল ১১টায় ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর। তার অকাল মৃত্যুতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড গভীর শোক প্রকাশ করে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ফ্যান ক্লাব বেঙ্গল টাইগার্স মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেছে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত